IND Vs NZ: Ruturaj Gaikwad Unlikely To Play New Zealand T20I Series Due To Wrist Pain

মুম্বই: ওয়ান ডে সিরিজে হোয়াইটওয়াশ হয়েছে নিউজিল্যান্ড (Ind vs NZ)। টি-টোয়েন্টি সিরিজেও আধিপত্য দেখাতে চায় টিম ইন্ডিয়া। তবে টি-টোয়েন্টি সিরিজ শুরুর আগে কিছুটা অস্বস্তি ভারতীয় শিবিরে।

কেন?

কারণ, নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি সিরিজ থেকে ছিটকে যেতে পারেন রুতুরাজ গায়কোয়াড় (Ruturaj Gaikwad)। হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে রঞ্জি ট্রফির ম্যাচ খেলার সময় কব্জিতে চোট পেয়েছেন রুতুরাজ। আপাতত তিনি রয়েছেন বেঙ্গালুরুর জাতীয় ক্রিকেট অ্যাকাডেমিতে। সেখানেই তাঁর চোটের চিকিৎসা চলছে। গায়েকোয়াড় নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে দলে রয়েছেন। তবে তিনি ফিট হয়ে উঠবেন কি না, তা নিয়ে তৈরি হয়েছে সংশয়।

আইপিএলে চেন্নাই সুপার কিংসের হয়ে ধারাবাহিকভাবে রান করে জাতীয় দলে ডাক পান রুতুরাজ। ২৫ বছর বয়সী ওপেনার তাঁর শেষ রঞ্জি ম্যাচে রান পাননি। ২ ইনিংসে করেছেন ৮ এবং ০। হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে ম্যাচের পরে রুতুরাজ ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের মেডিকেল টিমকে জানান যে, ব্যাটিং করার সময় তিনি ডানহাতের কব্জিতে ব্যথা অনুভব করেছেন। তারপরই বোর্ডের চিকিৎসকদের পরামর্শে এনসিএতে যান।

কব্জির চোট আগেও ভুগিয়েছে রুতুরাজকে। কব্জির চোটের কারণে গত বছরের জুলাই মাসে শ্রীলঙ্কার সিরিজে বাদ পড়েছিলেন তিনি। রুতুরাজ বিজয় হাজারে ট্রফিতে দুর্দান্ত ফর্মে ছিলেন। পাঁচটি ম্যাচের মধ্যে চারটিতেই সেঞ্চুরি করেন তিনি। তাঁর হঠাৎ চোটের কারণে সমীকরণ বদলেছে ভারতীয় দলে। নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে চোটের জন্য তিনি যদি খেলতে না পারেন তাহলে তাঁর পরিবর্তে দলে জায়গা পেতে পারেন মুম্বইয়ের পৃথ্বী শ। কিছুদিন আগেই মুম্বইয়ের হয়ে রঞ্জি ট্রফিতে রেকর্ড রান করেছেন। ৩৭৯ রান করে চমকে দিয়েছিলেন সকলকে। যা রঞ্জি ট্রফির ইতিহাসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান। তাই পৃথ্বীর সামনে দরজা খুলে যেতে পারে।

ভারতীয় মিডল অর্ডার ব্যাটার শ্রেয়স আইয়ারও পিঠের চোটের জন্য এনসিএ-তে রিহ্যাব করছেন। যে কারণে শ্রেয়স নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ওয়ান ডে সিরিজ থেকে ছিটকে গিয়েছিলেন। জাতীয় নির্বাচক কমিটি তাঁর পরিবর্তে রজত পতিদারকে দলে নেয়। সেই সময় ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সচিব জয় শাহ বিবৃতি দিয়ে জানান, শ্রেয়স পিঠের চোটের জন্য নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে একদিনের সিরিজ খেলতে পারবেন না। তাঁকে জাতীয় ক্রিকেট অ্যাকাডেমিতে পাঠানো হচ্ছে।

নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি সিরিজ শেষ হলেই অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজ খেলবে ভারত। প্রথম দুই টেস্টের জন্য আইয়ারকে দলে রাখা হয়েছে।

আরও পড়ুন: ABP Exclusive: ইতিবাচক বৈঠক, চলতি বছরেই শুরু হতে পারে সৌরভের বায়োপিকের শ্যুটিং