Singapore Edible Insects: ১৬ ধরনের ‘পোকামাকড়’ খাওয়ার অনুমতি দিয়েছে এই দেশ, আপনার খাদ্যতালিকায়ও অন্তর্ভুক্ত করবেন নাকি

মাংসের একটি ভাল বিকল্প হতে পারে পোকামাকড়। এগুলোতে প্রোটিনের পরিমাণও বেশি থাকে, এবং লালন পালনেও গ্রিনহাউস গ্যাস নির্গমন কম হয়। সেই কারণেই রাষ্ট্রপুঞ্জের খাদ্য ও কৃষি সংস্থাও এগুলোকে নির্দ্বিধায় খাদ্য তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করার পরামর্শ। যদিও, এতদিন এই পথে হাঁটছিল সিঙ্গাপুর। পোকামাকড় ব্যবসায়ীরা দাবি জানিয়ে আসছিলেন বহুদিন ধরে। অবশেষে এ বিষয়ে বড় সিদ্ধান্ত প্রকাশ্যে এসেছে।

কী সিদ্ধান্ত নিয়েছে সিঙ্গাপুর

সম্প্রতি এক অনন্য সিদ্ধান্ত নিয়েছে সিঙ্গাপুর সরকার। দীর্ঘ গবেষণার পর সিঙ্গাপুরের খাদ্য নিয়ন্ত্রক সিঙ্গাপুর ফুড এজেন্সি (এসএফএ) এই সিদ্ধান্তে এসেছে। তবে এগুলো ব্যবহারের আগে খাদ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা মেনে চলতে হবে। এ প্রসঙ্গে, সিঙ্গাপুরের খাদ্য নিয়ন্ত্রক মন্ত্রণালয় বলছে, এই ১৬ ধরনের পোকামাকড় কোনও ভাবেই মানুষের স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর নয়। সরকারের এ সিদ্ধান্তের পর খাদ্য ব্যবসায়ীদের মধ্যে আনন্দের জোয়ার বয়ে গিয়েছে। কারণ তাঁরা দীর্ঘদিন ধরে সরকারের কাছে এ দাবি জানিয়ে আসছিলেন।

ব্যবসায়ীদের জন্য কী নিয়ম বেঁধে দেওয়া হয়েছে

এসএফএ-এর মতে, যারা মানুষ বা পশু খাদ্যের জন্য পোকামাকড় বাড়াতে বা আমদানি করতে চান, তাঁদের অবশ্যই এসএফএ প্রবিধান মেনে চলতে হবে। আসলে এই ব্যবসায়ীরা চিন, থাইল্যান্ড ও ভিয়েতনামে উৎপাদিত এসব পোকা সিঙ্গাপুরে সরবরাহের ব্যবস্থা করে। নির্দেশিকা অনুসারে, ব্যবসায়ীদের প্রমাণ করতে হবে যে আমদানি করা পোকামাকড়গুলি খাদ্য সুরক্ষা আইন মেনেই নিয়ে আসা হয়েছে এবং কোনও বন্য থেকে তুলে আনা হয়নি। এছাড়াও, পোকামাকড়ের প্যাকেটজাত খাবারের সঙ্গে প্যাকেজিং লেবেল সংযুক্ত করতে হবে।

আরও পড়ুন: (Cachexia: ক্যানসারের কারণে মৃত্যু হয় না ক্যানসার রোগীদের, ভিতর থেকে কুড়ে কুড়ে খায় অন্য রোগ! কী নাম তার)

কোন কোন পোকা খাবে সিঙ্গাপুর

  • হাউস ক্রিকেট
  • ব্যান্ডেড ক্রিকেট
  • সাধারণ/মাঠের ক্রিকেট
  • কালো ক্রিকেট
  • আফ্রিকান পরিযায়ী পঙ্গপাল
  • আমেরিকান মরুভূমি পঙ্গপাল
  • ফড়িং
  • সুপারওয়ার্ম বিটল
  • মিলওয়ার্ম
  • লেসর মিলওয়ার্ম
  • হোয়াইটগ্রাব
  • জায়ান্ট রাইনো বিটল গ্রাব
  • গ্রেটার ওয়াক্স মথ
  • লেসার ওয়াক্স মথ
  • রেশম পোকা
  • ওয়েস্টার্ন হানি বি

চিন, সিঙ্গাপুরের পাশাপাশি ভারতেও এর চল আছে

উল্লেখ্য, চিন সহ বিশ্বের এমন অনেক দেশ রয়েছে, যেখানে পোকামাকড় খাওয়ার প্রবণতা রয়েছে। ভারতেও কিছু জায়গায়, অনেকেই লাল পিঁপড়ার চাটনি, পঙ্গপালের আচার এবং অন্যান্য পোকামাকড়ের খাবারগুলি খুব উৎসাহের সঙ্গে খেয়ে থাকেন।