Youth commits suicide for iPhone: বাবার কাছে দেড় লাখের আইফোন কেনার আবদার ছেলের, পূরণ না হওয়ায় আত্মঘাতী তরুণ

বাবার কাছে আইফোন কেনার আবদার করেছিল তরুণ। যার মূল্য প্রায় দেড় লক্ষ টাকা। কিন্তু, এত দামের ফোন কিনে দেওয়া সম্ভব ছিল না বাবার পক্ষে। ফোন কিনে না দেওয়ায় শেষ পর্যন্ত চরম পদক্ষেপ নিল ওই তরুণ। ঘর থেকে উদ্ধার হল তার ঝুলন্ত দেহ। মৃত তরুণের নাম সঞ্জয় (১৮)। ঘটনাটি ঘটেছে নভি মুম্বইয়ের কামোঠের। এই ঘটনায় অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করেছে পুলিশ। ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

আরও পড়ুন: চুরির অভিযোগে স্কুলেই বিবস্ত্র করে চালানো হল তল্লাশি, অপমানে আত্মঘাতী ছাত্রী

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, সঞ্জয় স্কুলে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছিল। শুধু পড়াশোনাই ছাড়েনি। খারাপ বন্ধুদের পাল্লায় পড়ে মাদকাসক্ত হয়ে পড়েছিল। তা নিয়ে আগে থেকেই দুশ্চিন্তায় ছিল পরিবার। তবে বেশ কিছুদিন ধরেই দামী আইফোন কেনার জেদ ধরেছিল বাবার কাছে। কিন্তু, ফোনের এত দাম শুনেই ছেলের আবদারে হতবাক হয়ে গিয়েছিলেন বাবা। জানা যায়, সঞ্জয়ের বাবার সিমেন্টের ব্যবসা রয়েছে। ছেলেকে এতো দামি ফোন কিনে দেওয়া সম্ভব ছিল না তার পক্ষে। সেই কারণে ছেলের আবদার পূরণ করতে না পেরে কম দামের ভিভো মোবাইল ফোন কিনে দিয়েছিলেন। তবে তাতে মোটেও খুশি ছিল না সঞ্জয়।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ওই ফোন কেনার পরেই মানসিক অবসাদে ভুগছিল সঞ্জয়। পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে খুব বেশি কথা বলত না। এরপরেই সোমবার রাতে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে বচসার পর নিজের ঘরে গলায় দড়ি দেয়। তড়িঘড়ি তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান পরিবারের সদস্যরা। সেখানে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুলিশ। মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয় মর্গে। ঘটনায় পুলিশের তরফে একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করা হয়েছে। তরুণের মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমেছে পরিবারে।

প্রসঙ্গত, গত বছর একই ধরনের ঘটনা ঘটেছিল উত্তর প্রদেশের গাজিপুরে। একইভাবে এক কিশোর আইফোন কেনার জন্য বাড়ি থেকে ১ লক্ষ টাকা চুরি করেছিল। তবে বিষয়টি জানতে পেরে বকাঝকা করেছিলেন বাবা। জানা যায়, ওই কিশোরের বাবা একজন কৃষক। তাই এতো টাকা দিয়ে ফোন কেনার পক্ষপাতী ছিলেন না। তারপরেই আত্মঘাতী হয় ওই কিশোর। বাড়ির কাছাকাছি একটি গাছে ঝুলন্ত অবস্থায় ওই কিশোরের দেহ উদ্ধার হয়।